Virat Kohli’s team India slips to number 2 as ICC implements new point formula । করোনার ধাক্কায় বদলে গেল টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের নিয়ম! এক থেকে দুয়ে নেমে গেল টিম ইন্ডিয়া


নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনাভাইরাস বদলে দিয়েছে অনেক কিছুই। এবার বদল বাইশ গজে। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের নিয়ম বদল করল আইসিসি। পয়েন্টের বিচারে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালিস্ট বাছা হবে না, পয়েন্ট এর শতকরা হারের নিরিখে বেছে নেওয়া হবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুই ফাইনালিস্টকে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে নামার আগে খারাপ খবর। আইসিসি-র নতুন নিয়মে এক নম্বরে থাকা ভারত নেমে গেল দুই নম্বরে। শীর্ষে উঠে এল অস্ট্রেলিয়া।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় ইতিমধ্যেই বাতিল হয়েছে আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্গত বেশ কিছু সিরিজ। মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে জুন মাস পর্যন্ত বন্ধ ছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। জুলাই মাসে ইংল্যান্ডে জৈব সুরক্ষা বলয়ে আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরেছে বাইশ গজে। এদিকে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ সময়ে শেষ করার জন্য (২০২১ সালের জুন মাসে) আইসিসি-ও তত্পর হয়ে ওঠে। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুই ফাইনালিস্ট নির্ধারণের বিকল্প রাস্তা খুঁজতে শুরু করে আইসিসি। পয়েন্টের নিরিখে নয়, সংগৃহীত পয়েন্টের শতকরা হারে নির্ধারিত হবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুই ফাইনালিস্ট। অনিল কুম্বলের নেতৃত্বাধীন ক্রিকেট কমিটির সুপারিশে সিলমোহর দিয়েছে আইসিসি-র এক্সিকিউটিভ কমিটি।

আইসিসি-র ক্রিকেট কমিটির সামনে যদিও বিকল্প হিসেবে ছিল, করোনার কারণে বাতিল হওয়া বা স্থগিত হওয়া সিরিজগুলোকে ড্র ঘোষণা করা। কিন্তু সে পথে হাঁটেনি ক্রিকেট কমিটি।

ক্রিকেট কমিটির সুপারিশে সিলমোহর পড়ার আগে চারটি সিরিজ খেলে ভারতের পয়েন্ট ৩৬০, ছিল সবার ওপরে। তিনটে টেস্ট সিরিজ খেলে অস্ট্রেলিয়ার পয়েন্ট ২৯৬। তারা দুই নম্বরে ছিল। চারটে সিরিজ খেলে ২৯২ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে ইংল্যান্ড।  আইসিসি-র নতুন নিয়মে অর্থাত্ শতাংশের নিরিখে ৭৫ শতাংশ হারে পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে ভারত। তাই পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকলেও শতাংশ হারে তালিকায় এখন দুই নম্বরে টিম ইন্ডিয়া। অন্যদিকে ৮২.২২ শতাংশ হারে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অস্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ড ৬০.৮৩ শতাংশ হারে পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে। তারা তিন নম্বরে থাকছে তালিকায়। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ খেলবে। এই দুটি সিরিজের উপর অনেকটাই নির্ভর করছে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতের খেলার সম্ভাবনা।

করোনা পূর্ববর্তী নিয়মে ছিল সব দেশ ছটি করে সিরিজ খেলবে। শেষে পয়েন্টের ভিত্তিতে নির্ধারণ করা হবে দুই ফাইনালিস্ট। তবে করোনার কারণে আপাতত সব পরিকল্পনা ভেস্তে যাওয়ায় বিকল্প পথ বেছে নিতে হয়েছে আইসিসিকে। আগামী ২০২১ সালের জুনে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে আয়োজন করতে চাইছে আইসিসি।

 

আরও পড়ুন –  দীপাবলিতে মেয়ের নাচের ভিডিয়ো পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায়, সমালোচনার মুখে শামি





Source link

Spread the love

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.