Skip to toolbar

করোনা ভাইরাস সতর্কতা

Bengali health tips

করোনা ভাইরাস সর্তকতা  

করোনা ভাইরাস সর্তকতা,–  দিনদিন করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক বাড়ছে ভারতেও। ইতি মাধ্যেই পশ্চিমবঙ্গ সহ একাধিক রাজ্যের স্কুল কলেজ ৩১ মার্চ পর্যন্ত ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে।

যে ভাবে এই ভাইরাস প্রভাব বিস্তার করছে তাতে বিশেষ সতর্কতা নেওয়া সত্যিই দরকার। এখন সচেতন না হলে সচেতন হওয়ার বিশেষ সুযোগ থাকবে না। চলুন একনজরে দেখে নি ভারতে করোনা ভাইরাসের প্রভাব।

কোরোনা ভাইরাস সর্তকতা

ভারতে করোনা ভাইরাসের প্রভাব     

☛ ভারতে নতুন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪। সব মিলিয়ে সংক্রামিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৪ জনে। যার মধ্যে ৫৬ জন ভারতীয় ও ১৭ জন বিদেশি পর্যটক। গতকাল, বৃহস্পতিবার রাতে সরকারি সূত্র জানিয়েছে, কর্নাটকের কালবুর্গি জেলায় মহম্মদ হুসেন সিদ্দিকি নামে ৭৬ বছরের যে বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছিল তিনি করোনাভাইরাস আক্রান্ত ছিলেন।

২৯ ফেব্রুয়ারি সৌদি আরব থেকে হায়দরাবাদে ফিরেছিলেন ওই ব্যক্তি। গত ৫ মার্চ হাঁপানি ও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা নিয়ে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

রিপোর্টে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এতদিন শুধু রাজ্যে রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যাই সামনে আসছিল। দেশে প্রথম ভাইরাস সংক্রমণে মৃত্যুর ঘটনা ঘটায় আরও সতর্ক স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

এখন সময় নিজে এবং নিজের পরিবারকে সতর্ক করা। এই কোরোনা ভাইরাস যেকোনো দিন যেকোনও এলাকাতেই ঢুকে পড়তে পারে। তাই সচেতন থাকলে সহজেই নিকেকে এই কোরোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব।

তবে একটা কথা বলে রাখা ভাল, ভুল তথ্য ছড়িয়ে লোককে বিভ্রান্ত করবেন না। গুজবে কান দেবেন না। সকলে সঠিক পরামর্শ দিন, নিজেও সঠিক ভাবে সতর্ক থাকুন।

করোনা ভাইরাস সর্তকতা

  • বাইরে ঘোরাঘুরি করার সময় অবশ্যই নাক মুখ ঢেকে রাখুন।
  • খুব ভীড় জায়গা এঁড়িয়ে চলুন
  • ভীড় বাস ট্রেন ট্রাম যতটা সম্ভব এভোয়েড করুন।
  • নখ নিয়মিত কাটুন।
  • হাত ভালকরে সাবান বা হেন্ড ওয়াস দিয়ে না ধুয়ে মুখে দেবেন না।
  • খাবার খাওয়ার আগে হাত ভাল করে সময় নিয়ে পরিস্কার করুন।
  • কাঁচা সবজি এখন না খাওয়াই ভাল
  • খাবার ভাল করে ফুটিয়ে খাবেন
  • বাইরের জল একদম খাবেন না। দরকার হলে ফুটন্ত জল ঠান্ডা করে সঙ্গেই রাখুন।
  • যারা সর্দিকাশিতে আক্রান্ত তাদের সঙ্গে দূরত্ব বজাই রেখে নাক মুখ ঢেকে কথা বলুন।
  • নিজের সর্দিকাশি হলে দ্রুত চেকাপ করিয়ে নিন।
  • স্নান করার সময় খেয়াল রাখবেন সাওয়ারের জল যেন মুখে না ঢোকে।
  • ব্রাশ করার সময় ফুটন্ত জল ব্যবহার করতে পারলে বেশি ভাল।
  • শরীরের কোনও স্থান আঘাত পেয়ে কেটে গেলে সেই কাটা জায়গা একদম খোলা রাখবেন না। আঘাতপ্রাপ্ত স্থান ঢেকে রাখুন, ঔষধ লাগিয়ে রাখুন।
  • বাড়ির ছোট বাচ্চাদের প্রতি বিশেষ যত্নবান হতে হবে। বাচ্চারা মুখে হাত দেবেই, তাই ওদের হাত মাঝে মাঝেই সাবান বা হেন্ড ওয়াস দিয়ে ধুয়িয়ে দিন।
  • ভীড়ের মাঝে বাচ্চাদের বা বয়স্কদের নিয়ে যাবেন না।

এখন সময় সচেতন থাকার, তাই যতটা সচেতন থাকতে পারবেন ততটাই আপনার জন্য আপনার পরিবারের জন্য এবং সমাজের জন্য মঙ্গলদায়ক। আপনার এবং আপনার পরিবার এই কোরোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদ থাকুক এটুকুই কামনা করি। ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন। সঙ্গে থাকুন।

Read moreকরোনা ভাইরাস সতর্কতা

COVID-19

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেখুন