Skip to toolbar
লকডাউন পশ্চিমবঙ্গ

লকডাউন বাংলা

কী করবেন লকডাউনে, কী করবেন না জানুন, শেষপর্যন্ত লকডাউন করা হল পুরো পশ্চিম বাংলাকে। করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থেকে রাজ্যকে বাঁচানোর জন্য এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

কেন ঘরবন্দী ভারত জেনেনিন

 

লকডাউন বাংলা

  • করোনাভাইরাস রুখতে গোটা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে লক ডাউন ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। সোমবার বিকেল ৪টে থেকে লাগু হবে লক ডাউন। আপাতত শুক্রবার রাত ১২টা পর্যন্ত চলবে লক ডাউন।
  • রবিবার বিকেলে নবান্ন থেকে জারি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, লক ডাউন চলাকালীন চালু থাকবে জরুরি যাবতীয় পরিষেবা। খোলা থাকবে যাবতীয় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকান। কোথাও ৭ জনের বেশি জড়ো হওয়া যাবে না।
  • অকারণে বাড়ি থেকে বেরোলে ১৮৮ ধারা অনুসারে সরকার ব্যবস্থা। বিদেশ থেকে ফিরলে বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিনের কোয়ারেনটাইনে থাকতে হবে।
  • লক ডাউনে খোলা থাকবে মুদি, রেশন, ওষুধের দোকান। খোলা থাকবে মাছ, মাংস ও সবজির বাজার। তবে চলবে না যানবাহন। অকারণে রাস্তায় বেরোলে গ্রেফতার করতে পারে সরকার।

লকডাউনে বাইরে অযথা বাইরে বেরোবেন না। প্রয়োজনীয় জিনিস বাড়িতে কিনে রাখুন। বাড়ির বয়স্ক এবং ছোটদেরকে বাইরে বার হতেই দেবেন না।

আরও পড়ুন☛ কীভাবে ছড়াচ্ছে করোনা ভাইরাস

কাঁচা শাকসবজি খাওয়া বন্ধ করুন।  মাছ মাংস ভালকরে গরম জলে আগেই ধুয়েনিন। ভালকরে ফোটান। ভালভাবে সেদ্ধ না করে কিছুই খাবেন না।

বারবার ভালকরে হেন্ড ওয়াস করুন। এটা কারফিউ নয় কেয়ার ফর ইউ। সরকার আপনার জন্য ভাবছে। আপনি নিজের জন্য ভাবুন নিজের পরিবারের জন্য ভাবুন।

কেন লকডাউন বাংলা 

লকডাউন বাংলা আমার আপনার পরিবারের ভালর জন্য। আজকে আমি আপনি সবাই সৈনিক, আমাদের সবার কর্তব্য দেশের পাশে থাকা।

কয়েকদিন বাইরে না বার হয়ে যদি করোনা ভাইরাসকে আটকে দিতে পারি তাহলে ক্ষতি কোথায়, চলুন সবাইমিলে সহযোগিতা করি।

এখন কিছুতেই আত্মিয়ের বাড়ি যাবেন না। আত্মিয়কেউ বাড়িতে আসতে নিষেধ করুন।

গুজবে কান দেবেন না, ভুল তথ্য ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করবেন না। সোশাল মিডিয়ার খবর যাচাই না করে বিশ্বাস করে নেবেন না।

অসুস্থ বোধ করলে নিকয়ের স্বাস্থকেন্দ্রে যান, নিজেকে পরিবারের অন্যের চেয়ে দূরে রাখুন। প্রতি ঘন্টায় একবার করে হেন্ড ওয়াস করুন। মাস্ক ব্যবহার করুন।

চলুন সবাই মিলে সবাইকে সচেতন করি। জয় হিন্দ জয় ভারত।

Spread the love

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

COVID-19

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেখুন