আজ কটার সময় গোলাপি চাঁদ দেখা যাবে

আজ সুপার পিঙ্ক মুন বা গোলাপি চাঁদ দেখতে পাবেন। কখন কটার সময় এই সুপার পিঙ্ক মুন বা গোলাপি চাঁদ দেখা যাবে জেনেনিন।

সুপার পিঙ্ক মুন  বা গোলাপি চাঁদ 

করোনা ত্রাসের ভেতরেই আকাশে অপূর্ব দৃশ্যের সাক্ষী থাকবে সারা বিশ্ব। এবার সুপার পিঙ্ক মুন বা গোলাপি চাঁদের মতো মহাজাগতিক দৃশ্যের মুখোমুখি হতে চলেছে সারা দুনিয়া।

আজ ৭ এপ্রিল এই সুপার পিঙ্ক মুন বা গোলাপি চাঁদ দেখেতে পাবে বিশ্ববাসী। 

৭ এপ্রিল চাঁদ নিজেকে অপূর্ব সুন্দর ভাবে প্রকাশ করবে পৃথিবীর আকশে। আগামী পূর্ণিমাতেই আকাশে দেখা পাওয়া যাবে সুপার মুনের।

এই বছরের সবথেকে উজ্জ্বল ও বড় পূর্ণিমা হবে এই ৭ এপ্রিল। ৭ এপ্রিলের এই সুপারমুনের নামকরণ হয়েছে গোলাপি চাঁদ।

তবে গোলাপি বলা হলেও পুরোপুরি  পিঙ্ক নয় এই চাঁদের রঙ। গবেষকরা বলছেন,চাঁদ যখন অনেক বড় ও উজ্জ্বল হয় তখন পৃথিবীর কক্ষপথের সব থেকে কাছে চলে আসে। তখন তাকে সুপারমুন বলা হয়। এবং সেই চাঁদের রঙ কিছুটা লালচে থাকে, এবার সেই লালচে ভাব না থেকে থাকবে গোলাপি আভা।

উত্তর আমেরিকার বসন্তকালের একটি গোলাপি ফুলের নামে এই চাঁদের নামকরণ হয়েছে। তাই ওই ফুলের নামেই একে পিঙ্ক মুন বলা হচ্ছে। আসলে ওই ফুলটির নাম ফোলক্স । তবে গোলাপি চাঁদ বাদেও স্প্রাউটিং গ্রাস মুন, এগ মুন এবং ফিশ মুন নামেও ডাকা হয় ওই চাঁদকে। 

কবে কখন দেখা যাবে সুপার পিঙ্ক মুন বা গোলাপি চাঁদ?

৭ এপ্রিল সন্ধা ৮ টা বেজে ৫ মিনিট থেকে ৮ এপ্রিল সকাল ৮ টা বেজে ৪০ মিনিট পর্যন্ত দেখা যাবে।

পৃথিবী এবং চাঁদের মধ্যবর্তী গড় দূরত্ব ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৪০০ কিলোমিটার। তবে এদিন চাঁদের গোলাপি আভা দেখা যাবে পৃথিবী থেকে ৩ লাখ ৫৬ হাজার ৯০৭ কিলোমিটার দূর থেকে। অর্থাৎ ওইদিন পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব কমে যাবে ২৭ হাজার ৪৯৩ কিলোমিটার।

চাঁদকে ৩০ গুন বেশি উজ্জ্বল আর ১৪ গুন বেশি বড় দেখাবে আজ সন্ধায়।

এখন এই লকডাউন আর করোনা আতঙ্কের ভেতর সুপার পিঙ্ক মুন বা গোলাপি চাঁদ কিছুটা হলেও বিনোদনের যোগান দেবে।

দিনের আলোয় চাঁদ ততটা উজ্জ্বল ভাবে  নিজেকে প্রকাশ করতে পারবে না ঠিক কথা কিন্তু এই সুপার মুন এর আনন্দ আমরা বসন্তের রাতের আকাশে অবশ্যই পাব।

পূর্ণিমার এবারের বসন্তের রাত হবে ঝকঝমে মুক্তো মাখানো। আশাকরি বাড়ির ছাদে বা ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে এই সুপার পিঙ্ক মুনের  বা গোলাপি চাঁদের দৃশ্য আপনি উপভোগ করতে পারবেন।

সুপার পিঙ্ক মুন বা গোলাপি চাঁদ

Spread the love

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.