পঙ্গপাল, pongopal

ধেয়ে আসছে পঙ্গপাল, দেখুন লাইভ ভিডিও

রাজস্থান থেকে ঝাড়খন্ড পথে পশ্চিম বাংলার দিকে ধেয়ে আসছে পঙ্গপাল দেখুন লাইভ ভিডিও। করোনা আমফানের পর পঙ্গপাল আর পরিযায়ী শ্রমিক বাংলার দুই আতঙ্ক।

 

আসছে পরিযায়ী শ্রমিক, ধেয়ে আসছে পঙ্গপাল

বর্তমানে করোনা ভাইরাস আরফানের তাণ্ডবে পুরোপুরি বিপর্যস্ত হয়ে আছে পশ্চিম বাংলা। এর মধ্যেই আরো দুটি আতঙ্ক বাংলার ঘুম কেড়ে নিয়েছে। প্রথমটি হচ্ছে পরিযায়ী শ্রমিক দ্বিতীয়টি পঙ্গপাল।

পরিয়ায়ী শ্রমিকেরা আমাদের কাছের মানুষ ঘরের মানুষ তারা পেটের টানে অন্যান্য রাজ্যে কাজ করতে গিয়েছিল সংসারের জন্যই। কিন্তু সময়ের নির্মম পরিহাসে তারাই এখন আতঙ্কে পরিণত হয়েছে । ইতিমধ্যে যে পরিমাণ পরিযায়ী শ্রমিক বাংলায় এসেছেন তাদের একটা বৃহদাংশ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ধরা পড়েছে।

বিশেষ করে যে সমস্ত শ্রমিক  মহারাষ্ট্র থেকে এসেছেন তাদের বেশিরভাগ এই ধরা পড়েছে করোনা পজেটিভ। এতদিন পর্যন্ত গ্রিনজোনে থাকা বাঁকুড়া জেলায় যে ১৪ জন করোনা পজেটিভ ধরা পড়েছে তার ভেতর ছাতনা ব্লক থেকেই ধরা পড়েছে ১৩ জন করোনা পজেটিভ। এই ১৩ জনের বেশিরভাগ এসেছেন মহারাষ্ট্র থেকে।

পরিযায়ী শ্রমিকেরা দলে দলে  আসছেন, কিন্তু সরকার উদাসীন। সমস্ত পরীদের শ্রমিককে তাদের ঘরে পাঠানো হচ্ছে যদি না তাদের টেম্পারেচার বেশি থাকে।  বেশিরভাগ  পরিযায়ী শ্রমিক নিজের নিজের এলাকায় গিয়ে দু’একদিন ঘুরে বেড়ানোর পর হোম কোয়ারান্টিনে থাকতে শুরু করছে। এরপর কি ঘটতে চলেছে সেটা আপনারা নিজেরাই কল্পনা করুন।

বাংলার অপর ভয়ঙ্কর আতঙ্কের নাম পঙ্গপাল

পঙ্গপাল, pongopal

আমরা ছোটবেলায় সহজ পাঠ বইতে এই পঙ্গপালের কথা প্রথমবার শুনেছিলাম। সহজ পাঠ বইতে যে ছবি ছিল তাতে আমরা দেখেছিলাম পঙ্গপাল দেখতে অনেকটা গঙ্গাফড়িং কিম্বা উচ্চিংড়ের  মত।

এখন আমরা বুঝতে পারছি কোন নির্দিষ্ট কীটপতঙ্গের নাম পঙ্গপাল নয় তাদের পুরো একটা দলের নামকে একসঙ্গে পঙ্গপাল বলা হচ্ছে।

এই পঙ্গপাল এতটা ভয়ঙ্কর যে এদের একটা অংশ কয়েকঘন্টার ভেতরেই ৩৫০০০ মানুষের খাবার নষ্ট করতে সক্ষম।

দীর্ঘ ২৭ বছর আগে এই পঙ্গপাল একবার ভারতে ঢুকে প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি করেছিল। এরপরেও বেশ কয়েকবার পঙ্গপাল ভারতে ঢুকেছে কিন্তু ক্ষয়ক্ষতি তেমন একটা হয়নি। কিন্তু এবার যে পরিমাণ পঙ্গপাল ভারতে ঢুকতে শুরু করেছে তাতে শুধু বাংলা নয় সারা ভারতের সর্বনাশ হতে পারে।

প্রতিবারই দেখা গেছে যখন কোনো না কোনো মহামারিতে আক্রান্ত হয়েছে ভারত বর্ষ ঠিক তখনই পঙ্গপাল প্রবেশ করেছে দেশে। এই পঙ্গপাল অনেকটা গোদের উপর বিষফোঁড়ার মত কিংবা কাটা ঘায়ে নুনের ছিটার মত।

এই প্রাণ গোপাল আর পরিযায়ী শ্রমিক পশ্চিমবাংলার আতঙ্কে পরিণত হয়েছে। এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। আমাদের ভবিষ্যৎ কি হতে চলেছে সেটা যদি একটু গভীরভাবে ভাবি তাহলে সত্যি সত্যিই হয়তো আজকে এই মুহূর্তে দম বন্ধ হয়ে যাবে।

Spread the love

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.