Skip to toolbar
প্রয়াত তাপস পাল

চলে গেলেন অভিনেতা তাপস পাল

প্রয়াত অভিনেতা তাপস পাল।

প্রয়াত তাপস পাল

মুম্বই বিমানবন্দরে বুকে ব্যথা অনুভব করেন। তাকে জুহুর হলিক্রস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ভোর ৩:৩৫ মিনিটে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় প্রাক্তন সাংসদের। ৬১ বছর বয়সে প্রয়াত। বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তিনি।

দাদার কীর্তি, সাহেব, গুরুদক্ষিণা, অনুরাগের ছোঁয়া, ভালবাসা ভালবাসা, আগমন, মঙ্গলদীপ-সহ তাঁর একাধিক ছবি দর্শকের মন জয় করেছে। ১৯৮০ সালে তাপস পালের প্রথম ছবি ৷ ‘দাদার কীর্তি’ ছবিতে প্রথম অভিনয় করেছিলেন ৷ বলিউডে অভিষেক ১৯৮৪ সালে ৷ মাধুরী দীক্ষিতের বিপরীতে ‘অবধ’ ৷ শেষ ছবি ২০১৩ সালে ‘খিলাড়ি’ ৷

অভিনেতার মৃত্যুতে টালিগঞ্জে শোকের ছায়া

তার মৃত্যুতে রঞ্জিৎ মল্লিক জানিয়েছেন, ছোট ভাইয়ের মৃত্যু কষ্টদায়ক ৷

তরুণ মজুমদার পরিচালিত ‘দাদার কীর্তি’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয় জগতে পা রাখেন তাপস পাল। তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ২২ বছর। ‘গুরুদক্ষিণা’, ‘সাহেব’, ‘ভালবাসা ভালবাসা’ তাঁর হিট ছবিরগুলির মধ্যে অন্যতম।

২০০৯-এ তৃণমূলের টিকিটে কৃষ্ণনগর থেকে জিতে সাংসদ হয়েছিলেন তিনি। রোজভ্যালি কাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগও উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে।

তাপস পালের নাম এলেই প্রথমেই মাথায় আসে,- গুরুদক্ষিণা সিনেমার সেই বিখ্যাত গান

এ আমার গুরুদক্ষিণা
গুরু কে জানাই প্রনাম
যার সুভকামনা আমি
এ সুর পেলাম
এ আমার গুরুদক্ষিণা (২)
ফুল তো হাজার ফোটে সাখায় সাখায়
সবাই তো দেবতা পরস না পায়
তোমার আসিসে ধন্য হলাম (২)
এ আমার গুরুদক্ষিণা
গুরু কে জানাই প্রনাম
যার সুভকামনা আমি
এ সুর পেলাম
এ আমার গুরুদক্ষিণা (২)
বিধাতা  দিয়েছে সর
তুমি দিলে সুর
সন্হ ভরা মমতায় বাঁধা হল দুর
সভকার পদরেনু মাথায় নিলাম (২)
এ আমার গুরুদক্ষিণা
গুরু কে জানাই প্রনাম
যার সুভকামনা আমি
এ সুর পেলাম
এ আমার গুরুদক্ষিণা (২)

আরও পড়ুন

Spread the love

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

COVID-19

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেখুন