অনলাইন ইনকাম

অনলাইন ইনকাম করার ৫ রাস্তা

আজকে অনলাইন ইনকাম করার ৫টি রাস্তা বলছি এই ৫টি রাস্তা দিয়ে আপনি খুব সহজেই অনলাইন ইনকাম করতে পারবেন। আজকের দিনে ঘরে বসে অনেকেই অনলাইনে রোজগার করছেন আপনি একবার চেষ্টা করে দেখুন।

অনলাইন ইনকাম করার ৫ রাস্তা

ঘরে বসে অনলাইন ইনকাম করতে কে না চায় কিন্তু অনেকেই সঠিক রাস্তা খুঁজে পায় না। আজকে আমরা আপনাকে অনলাইনে ইনকাম করার ৫ টি সহজ এবং সঠিক রাস্তা বলছি এই রাস্তা দিয়ে গেলে আপনি খুব সহজেই অনলাইন ইনকাম করতে পারবেন।

১) রিসেলিং করে ইনকাম

অনলাইনে ইনকাম করার সবচেয়ে সহজ এবং সুন্দর রাস্তা হচ্ছে রিসেলিং মার্কেটিং। রেসলিং মানে অন্য কোনও কোম্পানির প্রোডাক্ট নিজে বিক্রি করে কমিশন কামানো। Best reselling application and how to reselling

ধরুন একটি প্রোডাক্ট এর দাম কোম্পানি রেখেছে ১০০টাকা, কিন্তু এই প্রোডাক্ট আপনি অনায়াসে ৩০০ টাকায় বিক্রি করতে পারবেন। আপনি যদি এই প্রোডাক্ট ৩০০ টাকায় বিক্রি করেন তাহলে আপনি পুরো ২০০ টাকা প্রফিট করবেন।

আপনি আপনার প্রোডাক্টের লিংক হোয়াটসঅ্যাপ এবং ফেসবুকে শেয়ার করে অনায়াসে বিক্রি করতে পারবেন। আপনি চাইলে কোন প্রোডাক্ট কোম্পানির প্রাইস রেটে নিজের জন্য কিনতে পারবেন।

বিস্তারিত ভাবে জানুন কোন এপ্লিকেশন থেকে রিসেলিং করবেন কীভাবে করবেন ☛ Online income

২) ব্লগিং থেকে অনলাইন রোজগার

আজকের দিনে ব্লগিং হচ্ছে অনলাইনে ইনকাম করার সবচেয়ে বড় মাধ্যম। আপনি বাড়িতে বসে ব্লগিং করে প্রচুর টাকা অনায়াসে রোজগার করতে পারবেন যদি আপনি ব্লগিং সম্পর্কে ইন্টারেস্টেড হন তাহলে ।

যদি আপনি বিশেষ কোন জিনিস জানেন যেটা আপনি সহজেই অন্যকে জানাতে পারবেন, তাহলে আপনি আপনার জানা জিনিস লিখে খুব সহজেই রোজগার করতে পারবেন গুগল এডসেন্স মাধ্যমে বা অন্য কোন অ্যাড নেটওয়ার্কের মাধ্যমে।

ব্লগিং করে আজকের দিনে ব্লগাররা কত টাকা রোজগার করে তা হয়তো আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না। ভারতবর্ষে এমন অনেক ব্লগার আছেন যারা প্রতিদিন ১০০ ডলারের উপর রোজগার করেন।

বাংলায় ব্লগিং শিখুন

৩) ইউটিউব থেকে অনলাইন ইনকাম

ইউটিউব এবং ইউটিউব এর অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে আপনাদের হয়তো কমবেশি ধারণা আছে।

আপনারা যখন কোন ভিডিও ইউটিউবে দেখেন তখন নিশ্চয়ই দেখে থাকবেন যে ভিডিও গুলোতে এড চলতে থাকে। এই এড মূলত গুগল এডসেন্স দিয়ে থাকে।

ভারত এবং বাংলাদেশের হাজার হাজার ইউটিউবার ঘরে বসেই অনলাইনে প্রচুর টাকা ইনকাম করেন।

আপনি চাইলে একটা ইউটিউব চ্যানেল বানিয়ে অনায়াসে ভিডিও আপলোড করে ইনকাম করতে পারবেন যদি আপনি ভিডিও আপলোড বা ভিডিও তৈরিতে ইন্টারেস্টেড হয়ে থাকেন।

অনলাইনে ব্লগিং সেখানো থেকে শুরু করে অনলাইনে রান্না শেখানো, নাচ শেখানো পর্যন্ত সবকিছুর ভিডিও ইউটিউবে পাবেন এবং তারা প্রত্যেকে প্রচুর টাকা ইউটিউব থেকে রোজগার করেন।

আপনার যদি কোন বিষয়ের উপর বিশেষ কোন জ্ঞান থেকে থাকে এবং তা যদি ভিডিও তৈরীর মাধ্যমে আপনি শেখাতে পারেন তাহলে আপনিও আপনার ভিডিও থেকে প্রচুর টাকা রোজগার করতে পারবেন।

৪) এফিলিয়েট মার্কেটিং

রিসেলিং করার মত এফিলিয়েট মার্কেটিং হচ্ছে অনলাইন ইনকামের গুরুদেব। অ্যামাজন এবং ফ্লিপকার্ট এফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে আজকের দিনে ঘরে বসে লোক কোটি কোটি টাকা রোজগার করে।

আপনি যদি ইউটিউবে গিয়ে এফিলিয়েট মার্কেটিং সার্চ করেন তাহলে আপনি হাজার হাজার ভিডিও পাবেন যেখানে আপনাকে শেখানো হবে যে কিরকম ভাবে আপনি এফিলিয়েট মার্কেটিং শুরু করবেন। এবং কিরকম ভাবে আপনি অনলাইনে রোজগার করবেন।

অ্যামাজন ফ্লিপকার্ড ছাড়াও বিভিন্ন ওয়েব হোস্টিং কোম্পানির এফিলেট মার্কেটিং করে অনেকে প্রচুর টাকা ইনকাম করে থাকেন অনলাইনে। বেশিরভাগ ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি ১০০ ডলারের বেশী দিয়ে থাকে পার হোস্টিং সিলিং এর জন্য।

যারা ব্লগিং ফিল্ডে কাজ করেন তারা ওয়েবহোস্টিং সেলিং করে প্রচুর টাকা ইনকাম করে থাকেন যা তাদের গুগল এডসেন্স ইনকাম এর চেয়েও বহুগুণ বেশি।

৫) ফ্রিল্যান্সিং

অনলাইন ইনকাম করার আরেকটি উপযুক্ত মাধ্যম হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং করা। অনেকেই ঘরে বসে ফ্রিল্যান্সিং করে প্রচুর টাকা অনলাইন ইনকাম করেন।

ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য সবচেয়ে ভালো প্লাটফর্ম হচ্ছে ফিভার বা ফাইবার।

আপনি যে কাজ জানেন সেই কাজ অন্যের জন্য করে আপনি ঘরে বসে রোজগার করতে পারবেন । যেমন ধরুন আমি ওয়েবসাইট ডিজাইন করে থাকি এবারে কারো দরকার পড়ল ওয়েবসাইট ডিজাইন করানোর আমি তার ওয়েবসাইট বানানোর জন্য ৫০০০ টাকা নেব এটাই ফ্রিল্যান্সিং।

অনেকেই ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম স্ট্যাটাস  ব্লগের ব্যানার কিংবা ব্লগের জন্য ইনফোগ্রাফিক্স বানিয়েও প্রচুর ইনকাম করেন।

উপরের লেখা পাঁচটি রাস্তা ছাড়াও অনলাইনে রোজগার করার অনেক মাধ্যম আছে যেখান থেকে আপনি ভাল টাকা অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন।

যে প্ল্যাটফর্ম বা যে বিষয়ের উপর আপনি অনলাইনে ইনকাম করতে চাইছেন সেই বিষয় সম্পর্কে আগে গুগলে সার্চ করে কিংবা ইউটিউবে সার্চ করে দেখে নেবেন তারপর এই সেই কোম্পানির সাথে যুক্ত হয়ে অনলাইন কাজ করবেন।

বর্তমানে অনেক ফ্রড কোম্পানি অনলাইন ইনকামের অফার দিয়ে থাকে কিন্তু তারা কোনরকম পেমেন্ট করে না। তাই যে কোম্পানির হয়ে আপনি অনলাইনে কাজ করবেন সেই কোম্পানি সম্পর্কে আগে ভালো করে জেনে নেবেন।

বর্তমানে মোটামুটি ভাবে সারাবিশ্বে লকডাউন চলছে তাই অনলাইনে কাজ করার হিড়িক বেড়েছে অনেক বেশি এবং অনেক কোম্পানি অনলাইন ইনকাম করার সুযোগ দিচ্ছে, এই লকডাউন সুযোগকে কাজে লাগিয়ে অনেক ফ্রড কোম্পানি অনেক মানুষকে দিয়ে কাজ করিয়ে তাঁদেরকে কোনরকম পেমেন্ট করছে না। তাই কোন কোম্পানির হয়ে কাজ করার আগে সেই কোম্পানি সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নেবেন।

আপনার অজ্ঞতা আপনার পুরো শ্রমকে বেকার করতে পারে। তাই যে কোম্পানির হয়ে আপনি অনলাইনে ইনকাম করার কথা ভাবছেন সে কোম্পানি সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে রাখাটা আপনার দায়িত্ব ।

আপনি কি প্রেমে পড়েছেন? জেনেনিন এখুনি

Spread the love

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.